২২ বছরের অধ্যায়কে বিদায় বলছেন ইনিয়েস্তা!

খেলাধুলা

একদিন এই দিনটা আসবেই। কিন্তু এই যুক্তি দিয়েও বার্সেলোনা-ভক্তরা হয়তো নিজেদের মনকে সান্ত্বনা দিতে পারবে না। ক্ষমতা থাকলে তাঁরা দিনটাকেই অদৃশ্য করে দিতেন। আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা বার্সেলোনা ছাড়ছেন, এ যে হৃদয়ে রক্তক্ষরণ এনে দেওয়া এক ছবি হবে তাঁদের জন্য। কিন্তু অমোঘ পরিণতি তো তা-ই। ইনিয়েস্তা নিজেই ইঙ্গিত দিলেন, এই মৌসুমটাই হয়তো বার্সার সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ ক্যারিয়ারের শেষ! আর মাত্র কয়েকটা দিন!

বার্সেলোনা ও স্পেনের এই মিডফিল্ডার চীনের তিয়ানজিন কোয়ানজিয়ান ক্লাবে নাম লেখাচ্ছেন—এমন একটা গুঞ্জন ছিলই। এ মাসের শেষ দিন ইনিয়েস্তা আনুষ্ঠানিকভাবে নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানাবেন। তবে এরই মধ্যে গুঞ্জনটা বেশ জোরালো হয়ে উঠেছে। রোমার বিপক্ষে অবিশ্বাস্যভাবে ছিটকে পড়ার পরই ভাষ্যকারেরা বলছিলেন, সর্বকালের অন্যতম সেরা ইউরোপের গৌরবময় এই টুর্নামেন্ট থেকে হয়তো এভাবেই অগৌরবের শেষ টেনে দিয়ে বিদায় নিলেন! এবার ইনিয়েস্তার কথাতেও বাজল বিদায়ের সুর।

ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে গত ম্যাচে ২-১ গোলে জিতে লা লিগার শিরোপাকে নাগালের মধ্যে এনে ফেলার পর ইনিয়েস্তা বলেছেন, সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়ে গেছে, ‘আমি জানি আমি কী করতে চলেছি। যখন এটা নিয়ে বলা দরকার, তখনই বলব। প্রথমে ক্লাবকে জানাব, তারপর কোচকে, তারপর বাকি সবাইকে। এই কথাগুলোকে যে-কেউ চাইলে যেকোনোভাবে নিতে পারে। সমর্থকদের প্রতি আমার ভালোবাসা ও সম্মান এখন যেমন আছে, আজীবন থাকবে। কিন্তু তার মানে এমন নয় যে এ কারণে আমি সিদ্ধান্ত বদলাব। আমি কৃতজ্ঞ। তাঁরা আমার খেলা কত বছর ধরেন দেখছেন। এটাই আমার ঘর, শুরু থেকে তাঁরা আমাকে যে সমর্থন দিয়ে এসেছেন আজীবন মনে রাখব।’

এ তো আগাম বিদায়ী সম্ভাষণই! ১৯৯৬ সালে মাত্র ১২ বছর বয়সে বার্সেলোনার বিখ্যাত লা মাসিয়ায় নাম লেখান ইনিয়েস্তা। তখন থেকে এই একটা ক্লাবেই আছেন ২২ বছর ধরে। বার্সেলোনার হয়ে খেলেছেন ৬৬৫টি ম্যাচ।

২০১৩ সালে পাঁচ বছরের যে নতুন চুক্তি করেছিলেন, সেটা এ বছরই শেষ হচ্ছে। যদিও গত অক্টোবরে বার্সেলোনার সঙ্গে আজীবনের চুক্তি হয়েছিল তাঁর। ক্লাব এই সম্মানটি তাঁকে দেখিয়েছে। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত যেকোনো সময় চাইলে বার্সার হয়ে খেলার সুযোগ থাকছে তাঁর। যদিও এই চুক্তিটা অনেকটাই সম্মানসূচক।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *